যুদ্ধবন্দী দাসীর গান — কবি মোঃ শফিকুল আলম

কবি মোঃ শফিকুল আলম রচিত তাঁর ডাইরি থেকে সংগ্রহীত যুদ্ধবন্দী দাসীর গান আপনাদের সামনে হাজির করছি। এখানে কবি কবি মোঃ শফিকুল আলম একজন পেগন  নারীর যুদ্ধবন্দী নারীর দুঃখের কথাকে গানের আকারে পরিবেশন করেছেন।



ওই নারীর নালিশ আল্লাহর প্রতি। কিভাবে তিনি আল্লহর রাসূলের কারণে স্বামীকে হারিয়ে অনাথ হয়েছেন। কিভাবে তাঁর সুখের ঘর কেড়ে নষ্ট করে তাঁর দেহকে বস্তুর মতো বেচা কেনা করছে। এর দায় কে নেবে? আবার তিনি ভয়ও পাচ্ছে। নবীর নামে কিচ্ছু বললে যে তার শির ধরে থাকবে না। ব্যঙ্গ করে ওই মহিলা আরবের ধর্মকে মহান ধর্ম বলে ধিক্কার করেছেন।  এই কবিতা: 



যুদ্ধবন্দী দাসীর গান।

—কবি মোঃ শফিকুল আলম

তুমি রসূলে পাঠাইলে আল্লহ।
ভাঙ্গলে সুখের ঘর॥
স্বামীর খুনি হইলো আপন
স্বামী হইল পর।
জীবন দিলো লাখে লাখে,
জীবনের বিনিময়।
কোথায় তুমি? দেওনা দেখা।
দেখাও গো অভয়॥

(হে আল্লাহ) জাহান্নামে পুড়বে এ দেহ
হবে তোমার জ-য়।
কাফেরও তো সৃষ্টি তোমার।
কিছুই তাহার নয়।
তোমার নামে যুদ্ধ জিহাদ।
বৃথা রক্ত ক্ষয়।
  তোমার নামে বাদ বিবাদ 
ভক্তি মাখা ভয়?
তুমি রসূলে পাঠাইলে আল্লহ।
ভাঙ্গলে সুখের ঘর॥

 

(হে আল্লাহ) শয়তান তো বিপথ গামী
তোমার সুপথ কই?
যুদ্ধ বন্দী দাসী আমি
নিজেই নিজের নই।
বেচা কেনা বস্তুর মতো
আমার দেহ দান।
স্বামী প্রাণ নিয়েছে যারা
তাদের এই সন্মান।
রসূলে পাঠাইলে আল্লহ।
ভাঙ্গলে সুখের ঘর॥

যুদ্ধবন্দী দাসী আমি
নেই যে আমার নাথ।
স্বামী ছাড়া কাটে আমার
স্মৃতি জড়ানো রাত।
 রসূলে পাঠাইলে আল্লহ।
ভাঙ্গলে সুখের ঘর॥

যীশু খ্রীষ্ট দিয়েছিলো আত্ম বলিদান।
তোমার নবী কেড়ে নিলো আমার স্বামীর প্রাণ।
নবীর নামে বললে কিচ্ছু থাকবে না শির ধরে।
এমন মহান ধর্ম আমি গ্রহন করবো কি করে?

© Copyright - The HinduHum Network 

Post a Comment

নবীনতর পূর্বতন
InterServer Web Hosting and VPS
InterServer Web Hosting and VPS